কর্মক্ষম একটি দিনের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করার ৫টি উপায়

November 9, 2017
Image

অনেকসময় বিপণন ও বিক্রয় সংক্রান্ত কার্যাদি শুরু করার দিনটিতে কোন কারণে আমাদের মন ভালো নাও থাকতে পারে। সৃজনশীলতার অভাব যদি হতাশায় রুপ নেয়, তবে এমনকি চকলেট বা কফিও আমাদের চাঙ্গা করতে পারে না। নিজের এসব সীমাবদ্ধতাগুলোকে ঘৃণা না করে বরং সেগুলোকে নিয়ে এগিয়ে গেলেই অক্ষমতা দূরীভূত হতে থাকবে এবং হতাশা দূর হয়ে প্রফুল্ল অনুভূত হবে।

অভিজ্ঞ লোকেদের ভাবনাচিন্তার সমন্বয়ে নিচের ৫টি উপায়ে একটি সফল কর্মক্ষম দিনের সূচনা করা সম্ভব-

১। বর্তমান দিনটির সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো নিয়ে ভাবা উচিৎ। এটি পরে সাফল্য বয়ে আনবে। দুপুরের খাবারের আগে পরিকল্পনা মোতাবেক সেই কাজগুলো করলে নিজেকে অনেকটাই হালকা মনে হবে।

২। প্রতিনিয়ত অফিসের ডেস্কটিকে অপ্রয়োজনীয় ফাইলমুক্ত ও পরিপাটি করে রাখলে কাজের জন্য সুন্দর পরিবেশ নিশ্চিত হবে।

৩। ব্যবসা ও ব্যবসার উদ্দেশ্য নিয়ে কিছু সময় দেয়া উচিৎ। নিজের লক্ষ্য ও পরিকল্পনা নিয়ে ভাবলে তা অনেকটা এগিয়ে দেয় ক্যারিয়ারে।

৪। মেইলগুলোকে নিয়মিত যাচাইবাছাই করে ইনবক্সকে ফাঁকা রাখা উচিৎ। এতে বাড়তি চাপ কমে গিয়ে কাজে নিয়ন্ত্রণ আসবে এবং অন্যান্য দিকেও গতি আসবে।

৫। দিনশেষে নিজের দিনভর সফল বা ইতিবাচক ৩টি দিক লিখে রাখলে নিজের সৃষ্টিশীলতা ও ইতিবাচকতার ওপর যথেষ্ট বিশ্বাস জন্মাবে। কর্মক্ষেত্র ত্যাগের ১৫ মিনিট আগে অনাগত সাফল্যের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করলে পরবর্তী দিনের কাজেও তা ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

সবশেষে বলা যায়, সুষ্ঠু পরিকল্পনাই একটি সফল কর্মক্ষম দিনের মূল রহস্য।

বেক্সিমকো গ্রুপের মতো স্বনামধন্য কম্পানিকে কাজ করলেও সৃজনশীলতা দেখাতে পারবেন, কর্মক্ষম ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।

পূর্ববর্তী পোস্ট
ঢাকায় সাইকেল চালানোর কালচার
পরবর্তী পোস্ট
সফল মানুষেরা যা কখনোই করেন না

Related Posts