সেরা পাঁচ মোবাইল অ্যাপস

December 12, 2013
Image

কখনো কি চোখ কপালে ওঠার মতো বিল হাতে পেয়েছিলেন? কি বলেন, গত মাসেই চোখ কপালে উঠেছিল? আসলে এগুলো হয়তো আমাদের সবার জীবনেই কম বেশি ঘটেছে। হয়তো আপনি ব্যাগপত্র গুছিয়ে ছুটি কাটিয়ে আসেছেন। ছুটি শেষ হলেই আপনাকে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়তে হল যখন বাড়ি ফিরে দেখলেন আপনার ফোনে ভাবনাতিরিক্ত বিল উঠে আছে। হয়তো আপনিই আপনার পরিবার পরিজনকে ফোন করে এই বিল তুলেছেন। না হয় আপনার বাচ্চারা তার বন্ধুদের এসএমএস অথবা কল করেছে!

তবে হ্যা। আপনার যদি একটা স্মার্টফোন থাকে তাহলে আপনি হয়তো অবাক হবেন যে বাজারে অনেক অ্যাপস পাওয়া যায় যা দিয়ে আপনি কম টাকায় কল করতে পারবেন। পারবেন এসএমএস পাঠাতে, এমনকি ফ্রিতে ইন্টারনেটও চালাতে পারবেন। কিন্তু স্মার্টফোনের এমন পয়সা বাঁচানো অ্যাপসগুলো সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই স্পষ্ট ধারণা থাকে না। এমনই কয়েকটি অ্যাপস আমাদের আজকের আলোচ্য বিষয়।

১. হোয়াটস-অ্যাপস: ফ্রি এসএমএস প্রথম যে অ্যাপসটি আপনার পয়সা বাঁচাবে সেটাকে বলে হোয়াটস-অ্যাপস। এটা আপনাকে বিনে পয়সায় এসএমএস করার সুযোগ দেবে। এটার মাধ্যমে আপনি আপনার মোবাইলের সবগুলো নম্বরে একই সাথে এসএমএস পাঠাতে পারবেন। সারা বিশ্বে ২০০ মিলিয়ন লোক হোয়াটস-অ্যাপ ব্যবহার করে। এটা আপনি হোয়াটস-অ্যাপ এর ওয়েবসাইড থেকে মাত্র .৯৯ ডলারের বিনিময়ে ডাউনলোড করতে পারবেন।

২. ইলো-কম খরচে কল: রোমিং, ইন্টারন্যাশনাল কল, দূরবর্তী স্থানে কল, রিচার্জ কার্ড, কতশত খরচ। কিন্তু ইলো অ্যাপস আপনার খরচের পরিমাণ কমিয়ে দেবে অনেকাংশে। এটাকে কম খরচের সেরা অ্যাপস বলে বিবেচনা করা হয়। এটার মাধ্যমে মোবাইল কোম্পানিগুলোর চেয়ে ৯০ শতাংশ কম খরচে কথা বলা যাবে। এটা এতটাই সুলভ এবং সহজ যে আপনার আর ইচ্ছাই হবে না অন্যকোনো প্রতিষ্ঠানকে বেশি টাকা দিতে। এটার মাধ্যমে আপনি যেমন মোবাইলে কল করতে পারবেন তেমনি ল্যান্ডফোনেও কল করতে পারবেন।

৩. ওনাভো-কম খরচে ইন্টারনেট: ওনাভো আরো একটি পয়সা বাঁচানোর অ্যাপস। এটার মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনাকে কম খরচ করতে সাহায্য করবে। এটার মাধ্যমে আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করলে আগের চেয়ে ৩০-৩৫ শতাংশ ডাটা কম খরচ হবে। বেশিরভাগ মোবাইল অপারেটরই বেশি ডাটা খরচ করাতে চায়। যেটার কারণে অনেক সময়ই গ্রাহকদের অতিরিক্ত ডাটা খরচ হয়। কিন্তু ওনাভো কম ডাটা খরচের বিষয়টি নিশ্চিত করে। এই অ্যাপসটি ডাউনলোড করতে ওনাভোর ওয়েবসাইড ভিসিট করুন।

৪. ফন-ফ্রি মোবাইল ডাটা: ফন হচ্ছে অত্যাবশকীয় একটি অ্যাপস। এটার মাধ্যমে আপনি মোইবাইলে ফ্রি ডাটা ব্যবহার করতে পারবেন। ফন আপনাকে পৃথিবীর ৭ মিলিয়ন ওয়াইফাই হটস্পট ব্যবহারের সুযোগ দেয়। আপনাকে শুধু ফন হটস্পট এর অবস্থান খুঁজে বের করতে হবে। তাহলেই আপনি ফ্রিতে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। এই সুবিধা পেতে আপনাকে যা করতে হবে সেটা হল ফনের একটি রাউটার কিনে ফনের সদস্য হতে হবে। ফন ইতিমধ্যে বিটি, এমটিএস, ওআই, এসএফটি এবং অন্যান্য অপারেটরদের সাথে চুক্তি করেছে। ফলে আগামী বছর থেকে বড় বড় দেশগুলো ফনে আওতায় চলে আসবে।

৫. ওয়েফাই-ফ্রি হটস্পট: পঞ্চম এবং শেষ অ্যাপসটি হচ্ছে ওয়েফাই। এটাও এমন একটি অ্যাপস যা আপনাকে আপনার স্মার্টফোনে ফ্রি ডাটা পেতে সাহায্য করবে। এই অ্যাপসের ডাটাবেজে প্রায় ১০০ মিলিয়ন ওয়াইফাই হটস্পট আছে। ওয়েফাইয়ের ওয়েবসাইড থেকে এই অ্যাপসটি ডাউনলোড করা যাবে।

উপরের অ্যাপসগুলো আপনাকে মোবাইলের খরচ বাঁচাবে। পাশাপাশি সর্বোচ্চ সুবিধা দেবে। সর্বপরি আপনাকে সর্বদা তদারকির মধ্যে থাকতে হবে যে কিভাবে আপনার স্মার্টফোনটির ডাটা ম্যানুয়ালি সুইচ অফ করা যায় অথবা ভ্রমণের সময় কিভাবে আপনার মোবাইলে নিজস্ব অপারেটরে থেকেই কল করা যায়। স্মার্টফোন বর্তমানে খুবই স্মার্ট। কিন্তু এতোটা স্মার্ট নয় যে আপনি কখনো মোবাইল ডাটা বন্ধ করে রাখবেন অথবা রোমিং অবস্থায় কল করবেন সেটা আপনাকে জিজ্ঞেস করবে বা বাতলে দেবে। হয়তো এটা অপারেটদের অন্যতম বৈশিষ্ট যার মাধ্যমে তারা কিছু বেশি টাকা আয়ের চেষ্টা করে থাকে।

পূর্ববর্তী পোস্ট
পেশাগত জীবনের চাপ ও সস্তা কফির কাপ
পরবর্তী পোস্ট
জাহাজনির্মাণ শিল্পের সম্ভাবনা উজ্জল

Related Posts